এসি টেক ইন্সটিটিউটের ট্রাস্টি হলেন আলীনগর ইউনিয়নের ২ কৃতিসন্তান মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন ও আব্দুল মালিক

Uncategorized

আলীনগর দর্পণ ডেস্ক : বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নে নির্মানাধীন কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান “এসি টেক ইন্সটিটিউট” এর ট্রাস্টি হলেন একই ইউনিয়নের লন্ডনে বসবাসরত প্রবাসী আলীনগর ইউনিয়ন সমিতি ইউকের সভাপতি ও এমকেসি ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সিইও মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন এবং প্রবাসী আলীনগর ইউনিয়ন সমিতি ইউকের সহ সভাপতি ও দারুস-সালাম ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা আবুল মালিক।

বিয়ানীবাজার উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নে একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দাবি বিগত কয়েক বছর থেকে করে আসছিলেন সচেতন মহল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এগিয়ে আসেন আজাদ চৌধুরী একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা আজাদ চৌধুরী। তাকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন, আব্দুল মালিক, ফয়জুর রহমান খাঁন নুনু ও এম এ জামান।

আজাদ চৌধুরী এডুকেশন ও ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের “এসি টেক ইন্সটিটিউট” প্রজেক্টে মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন ও আব্দুল মালিক যুক্ত হন ট্রাস্টি হিসেবে আর ফয়জুর রহমান খাঁন ও এম এ জামান যুক্ত হন দাতা সদস্য হিসেবে। এছাড়াও মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন ও আব্দুল মালিক গ্রান্ড ফ্লোরে দুটি ক্লাস রুমের দ্বায়িত্ব গ্রহন করেন। প্রতিটি রুম নির্মানে ব্যায় ধরা হয়েছে ১৫ লক্ষ টাকা ।

এক বার্তায় একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা আজাদ চৌধুরী জানান, এসি টেক ইন্সটিটিউটের কাজ চলতেছে। জানুয়ারী ২০২২ শিক্ষা কার্যক্রম শুরু  হবে বলে তিনি আশাবাদী । তিনি মনজুরুছ ছামাদ চৌধুরী মামুন ও আব্দুল মালিককে সার্বিক সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান এবং তিনি বলেন “এসি টেক ইন্সটিটিউটের” গ্রান্ড ফ্লোরে কেয়কটি ক্লাস রুম যার প্রতিটি নির্মানে ব্যায় হবে ১৫ লক্ষ টাকা, ফাস্ট ফ্লোরে প্রতিটি ক্লাস রুম নির্মানে ব্যায় হবে ১৩ লক্ষ টাকা। তিনি যথাসময়ে নির্মাণ কাজ শেষ করতে শিক্ষানুরাগী ও বিত্তবানদের প্রতি রুম নির্মানে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

91

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *