বিয়ানীবাজারের ইউএনও মৌসুমী মাহবুব কোয়ারেন্টাইনে

বাংলাদেশ সিলেট

আলীনগর দর্পণ ডেস্ক : বাসায় অবুঝ শিশূদের রেখে সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সচেতন করে তোলা বিয়ানীবাজারের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমী মাহবুব কোয়ারেন্টাইনে আছেন। তাঁর কার্যালয়ের এক কর্মচারীর করোনা পজেটিভ ফলাফল আসার পর থেকে স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে যান তিনি।

নিজ বাসায় ছোট দুই শিশু সন্তানকে রেখে এতদিন করোনার বিরুদ্ধে লড়েছেন ইউএনও। স্থানীয় জনমনে তাঁর ভ‚মিকা বেশ প্রশংসিত হয়। বুধবার তাঁর নমুনা নেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সংশ্লিষ্টরা।

একজন নারী, একজন মা হওয়ার পরও ইউএনও যেভাবে সামনের সারিতে থেকে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করে তোলতে কাজ করেছেন তা সত্যিই প্রশংসার-বলেন পৌর মেয়র মো: আব্দুস শুকুর। উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জামাল হোসেন বলেন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে ইউএনও’র কর্মকান্ড অনকরণীয়।

পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদ জানান, ইউএনও করোনা মহামারিতে অনেকের আদর্শ। একজন নারী হয়েও ঘরে থাকেননি তিনি। সবকিছু সামলে বিয়ানীবাজারের মানুষকে নিরাপদে রাখতে কাজ করছেন তিনি।

ইউএনও মৌসুমী মাহবুব গত বৃহস্পতিবারও নিজে স্বাস্থ্যবিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন। করোনার এই দূর্যোগে ত্রাণ নিয়ে বাড়ি-বাড়ি গেছেন তিনি। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন, দাফন, কোয়ারেন্টাইন-আইসোলেশন নিশ্চিত করতে কাজ করা ইউএনও এখন নিজেই কোয়ারেন্টাইনে। উপজেলা কমপ্লেক্সের সরকারি বাসভবনে তিনি তাঁর মা এবং ছোট দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে বসবাস করছেন। তাঁর স্বামী চাকুরীজনিত কারণে ঢাকায় বসবাস করেন।
ইউএনও মৌসুমী মাহবুব বলেন, ছোট্র বাচ্চাদের নিয়ে আমার যত ভয়। আমি সরকারি একজন কর্মকর্তার পাশাপাশি একজনও নারী এবং মা। মা হিসেবে আমি কেমন থাকতে পারি, তা শুধুমাত্র মা-ই বুঝবেন। তিনি বলেন, বাসায় থেকেও সীমিত পরিসরে অফিস করার চেষ্টা করবো। তিনি বিয়ানীবাজারবাসীর দোয়া কামনা করেন।

বুধবার সকালে ইউএনও অফিসের কর্মচারী আফজাল হোসেনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপরই তিনি কোয়ারেন্টাইনে যান। গত ৬ জুন তার নমুনা দেয়া হয়। পহেলা জুন আফজাল জ্বরে আক্রান্ত হয়। এরপর সে সূস্থ হয়ে ওঠলেও ৬ জুন সে নমুনা পরীক্ষার জন্য জমা দেয়। আগে নমুনা দিতে চাইলেও কিট সংকটের কারণে আফজালের নমুনা নেয়া হয়নি। নমুনা দেয়ার পর তার সে সূস্থতা অনুভব করায় এবং ইউএনও অফিসে লোকবল কম থাকায় সে মাঝেমধ্যে অফিসে যাতায়াত করেছে।

17

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *