দুর্যোগকালীন সময়ে মানুষের পাশে থাকবে জমিয়ত: উবায়দুল্লাহ ফারুক

বাংলাদেশ সিলেট

 

কানাইঘাট প্রতিনিধি : জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৫ আসনে ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক বলেছেন, করোনার দুর্যোগকালীন সময়ে দেশের মানুষের পাশে থেকে জমিয়তের নেতাকর্মীরা অসহায়দের নানাভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

রবিবার সকাল ১১টায় কানাইঘাট প্রেসক্লাব কার্যালয়ে জমিয়তে উলামা ইসলামের প্রবাসী বন্ধু প্রতীম সংগঠন প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্টের বিভিন্ন মানবিক কার্যক্রম তুলে ধরার পাশাপাশি কানাইঘাটের কর্মরত সাংবাদিকদের করোনা দুর্যোগকালীন সময়ে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানকালে এক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্টের প্রধান উপদেষ্টা আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক সাংবাদিকদের সামনে বিভিন্ন অভিমত তুলে ধরেন।

এ সময় তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারী করোনার এ দুর্যোগকালীন সময়ে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের নেতাকর্মীরা দেশের বিভিন্ন এলাকায় অসহায় মানুষদের খাদ্য দিয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। পাশাপাশি যারা করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন, অনেকের লাশ জমিয়তে নেতাকর্মীরা দাফন কাফনের ব্যবস্থা সহ তাদের পরিবারের সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিচ্ছেন। বিশেষ করে সিলেট অঞ্চলে জমিয়তের প্রবাসী সংগঠন প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্ট কানাইঘাট উপজেলা সহ সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় এই দুর্যোগ মুহুর্তে বাড়ি বাড়ি গিয়ে জমিয়তের নেতাকর্মীরা শত শত অসহায় পরিবারগুলোকে খাদ্য সামগ্রী ও অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করে আসছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত জমিয়তের নেতাকর্মীরা প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করে তাদের কষ্টার্জিত অর্থের একটি অংশ মানবিক কল্যাণে এই মুহুর্তে ব্যয় করছেন। সেই অর্থ দিয়ে জমিয়তের নেতাকর্মীরা খাদ্য সামগ্রী ও নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ও অনেক অসহায় পরিবারকে খাদ্য ও আর্থিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্ট সব-সময় অসহায়দের পাশে থাকবে উল্লেখ করে তিনি সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে আরো বলেন, দেশের এই ক্রান্তিকালে সাংবাদিকরা সারাদেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা থেকে মানুষকে সচেতন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তারা বিভিন্ন তথ্য জনগণের সামনে তুলে ধরছেন। সাংবাদিকরা সঠিক তথ্য জাতির সামনে তুলে ধরলে করোনার দুর্যোগকালীন সময়ে সরকার কর্তৃক যে মানবিক সহযোগিতা করা হচ্ছে এবং যারা খাদ্য ও অর্থ সহায়তা প্রকৃতভাবে পাওয়ার কথা তা অনেকটা বাস্তব রূপ নেবে।

উবায়দুল্লাহ ফারুক বলেন, বিশেষ করে মফস্বল এলাকায় যে সকল সাংবাদিক ভাইরা দায়িত্ব পালন করে থাকেন, তাদেরকে সহযোগিতা করা এই মুহুর্তে আমাদের সকলের উচিৎ। জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্ট সেটা বিবেচনা করে ঐতিহ্যবাহী কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সকল সদস্য এবং যারা সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িত রয়েছেন তাদেরকে সাধ্যানুযায়ী আমরা সহযোগিতা করার ইচ্ছা পোষনের মধ্য দিয়ে আপনাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। ভবিষ্যতেও আপনাদের সকল কাজে জমিয়ত সহযোগিতা করে যাবে। তিনি কানাইঘাটে সরকারী মানবিক সহায়তা ও ত্রাণ কার্যক্রমে দলপ্রীতি, স্বজনপ্রীতি ও ভোটপ্রীতি উপেক্ষা করে প্রকৃত অসহায়দের তালিকা তৈরি করে তাদেরকে সহযোগিতা করার জন্য প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধির প্রতি আহ্বান জানান।

করোনার এ দুর্যোগকালীন সময়ে কানাইঘাটের কর্মরত সাংবাদিকদের জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রবাসী সংগঠন প্রকাস কল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা সহযোগিতা প্রদান করায় প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সিলেট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি এম.এ হান্নান ও ক্লাবের সহ সভাপতি আব্দুন নুর, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন, জমিয়তে উলামা ইসলাম কানাইঘাট উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ সভাপতি মাও. নুর আহমদ কাসেমী, সাধারণ সম্পাদক মুফতি ইবাদুর রহমান, কানাইঘাট পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি কাউন্সিলর শরিফুল হক, পৌর জমিয়তের সভাপতি মাও. আমির হুসাইন, সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমদ, উপজেলা জমিয়তের সহ সভাপতি মাও. হেলাল আহমদ, মাও. মাহমুদ হুসাইন, পৌর জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক মাও. হবিব আহমদ, উপজেলা ছাত্র জমিয়তের সাবেক সভাপতি মাও. জাকারিয়া আল হেলাল, হাফিজ রিয়াজ আহমদ, পৌর যুবদলের সভাপতি খসরুজ্জামান পারভেজ, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক রুহুল আমিন সহ জমিয়তের নেতৃবৃন্দ সহ স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ।

মতবিনিময় শেষে করোনা থেকে দেশ ও জাতির কল্যাণে কামনা করে করোনায় মৃত্যুবরণ কারীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও আক্রান্তদের সুস্থতা কামনা করে দোয়া করেন মাও. উবায়দুল্লাহ ফারুক।

21

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *